News

আইআইইউসি’র আলোচনায় ভিসি প্রফেসর কে. এম. গোলাম মহিউদ্দিন

বঙ্গবন্ধুর মত জাতীয়তাবাদী নেতা সারা বিশ্বে একজনও খুঁজে পাওয়া যাবেনা

আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম (আইআইইউসি)’র ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর কে.এম. গোলাম মহিউদ্দিন বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর মত জাতীয়তাবাদী নেতা সারা বিশ্বে একজনও খুঁজে পাওয়া যাবেনা। তিনি জাতিসংঘে বাংলায় বক্তৃতা করে মাতৃভাষার মর্যাদাকে সমুজ্জ্বল রেখেছিলেন। দুর্নীতিমুক্ত দেশ গঠনে বঙ্গবন্ধুর সাহসী ভূমিকা ছিল। দুর্নীতির ব্যাপারে তিনি নিজের দলের লোককেও ছাড় দেননি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান।


বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের ৪৫তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আজ শনিবার সকালে আইআইইউসি আয়োজিত এক ভার্চুয়াল আলোচনা ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর কে.এম গোলাম মহিউদ্দিন এ কথা বলেন। আইআইইউসি’র প্রো ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আলী আজাদীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ আয়োজনে নির্ধারিত আলোচক হিসাব্যে বক্তব্য রাখেন, আইআইইউসি’র ট্রেজারার প্রফেসর ড. আবদুল হামিদ চৌধুরী, বিজ্ঞান ও প্রকৌশল অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মোঃ দেলাওয়ার হোসেন এবং স্বাগতঃ বক্তব্য রাখেন আইআইইউসি’র রেজিস্ট্রার কর্নেল মোহাম্মদ কাশেম পিএসসি (অব:)। ভার্চুয়াল আলোচনা ও দোয়া অনুষ্ঠান হোস্টিং করেন স্টুডেন্ট এ্যাফেয়ার্স ডিভিশনের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মোহাম্মদ মামুনুর রশীদ।


প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর কে.এম গোলাম মহিউদ্দিন বলেন, বঙ্গবন্ধু সত্যিকার অর্থেই হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী। তাঁর রাজনৈতিক দূরদর্শিতা ছিল অতুলনীয়। তিনি এ দেশের মানুষের মনকে বুঝেছিলেন। তাই তিনি মুসলিম বিশ্বের সাথে সম্পর্ক সুদৃঢ় করেছিলেন। প্রফেসর কে.এম গোলাম মহিউদ্দিন বলেন, কাজী নজরুল ইসলামকে জাতীয় কবির মর্যদা দেয়ার জন্যেই বঙ্গবন্ধু তাকে বাংলাদেশে নিয়ে এসেছিলেন। তাঁর মধ্যে দ্বিচারিতা ছিলনা, তিনি যা বিশ্বাস করতেন তা জোরালোভাবে বলতেন। তিনি শহীদ, তার স্থান হবে বেহেশেতেই।


সভাপতির বক্তব্যে আইআইইউসি’র প্রো ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আলী আজাদী বলেন বঙ্গবন্ধু কাপুরুষ ছিলেন না, তিনি বীর ছিলেন, দূরদর্শী ছিলেন। তাঁকে দেশ গড়ার সময় দেয়নি ঘাতকরা। প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আলী আজাদী বর্তমান ক্রান্তিকালে ঐক্যবদ্ধভাবে শান্তি ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করার আহ্বান জানান।আলোচনা সভা শেষে বঙ্গবন্ধুর রুহের মাগফেরাত কামনা করে মুনাজাত পরিচালনা করেন ড. শফিকুর রহমান।
সকাল থেকে অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে ছিল ফজর ও যোহর নামাজ শেষে আইআইইউসি কেন্দ্রীয় মসজিদে শহীদ স্মরণে বিশেষ দোয়া, জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত উত্তোলন। যোহর নামাজ শেষে আইআইইউসি কেন্দ্রীয় মসজিদে শহীদ স্মরণে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন মসজিদের ইমাম মাওলানা আবু বকর। এ সময় আইআইইউসি’র সিন্ডিকেট সদস্য প্রফেসর ড. নাজমুল হক নাদভী, প্রক্টরিয়াল বডির সদস্য, বিভিন্ন ডিভিশনের পরিচালক, শিক্ষক ও কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

Recent News